ঢাকা ০৫:৫৭ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
Logo বিরামপুরে সৌদির সাথে মিল রেখে ১৫টি গ্রামের পরিবারে ঈদুল আজহা উদযাপন Logo শেরপুরে পবিত্র ঈদুল আযহার উপলক্ষে শুভেচ্ছা ও আর্থিক সহায়তা দিলেন ছানুয়ার হোসেন ছানু এমপি Logo “দৈনিক বর্তমান সংবাদের নির্বাহী সম্পাদক ও এশিয়ান টিভি ভালুকা প্রতিনিধি”মো:কামরুল ইসলাম “পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা Logo “প্রেসক্লাব ভালুকা “সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম”পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা Logo “দৈনিক বর্তমান সংবাদের সহ সম্পাদক “সেরাজুর ইসলাম সিরাজ “পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা Logo দৈনিক বর্তমান সংবাদের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক “সুমন মিয়া “পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা Logo “দৈনিক বর্তমান সংবাদের প্রকাশক ও সম্পাদক”মামুন হাসান বিএ”পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা Logo ঈদ আগাম বুকিং কম চায়ের রাজ্য শ্রীমঙ্গলে Logo বিরামপুরে সৌদির সাথে মিল রেখে ১৫টি গ্রামের পরিবারে ঈদুল আজহা উদযাপন Logo শাহজাদপুর উপজেলা কৃষকলীগ সাধারণ সম্পাদকের পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা।

চরভদ্রাসনে সরকারি জায়গা দখল করে দােকানঘর নির্মাণ করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে

ফরিদপুর প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ০৪:২২:০৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১ মার্চ ২০২৪ ৩৫ বার পড়া হয়েছে

ফরিদপুর জেলা প্রতিনিধি:

ফরিদপুরের চরভদ্রাসনে সরকারি জায়গা দখল করে দোকানঘর নির্মাণ করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

উপজেলার সদর ইউনিয়নের মৌলভীরচর বাজারের পশ্চিম পাশে খালের উপড়ে এই দোকানটি নির্মাণ করা হচ্ছে।

দোকানটি নির্মাণ করেছেন ওই বাজারের দর্জি ব্যবসায়ী স্থানীয় সাজাহান মৃর্ধার ছেলে মুরাদ মৃর্ধা।

সরেজমিনে (১মার্চ) শুক্রবার দুপুরে বাজারটি ঘুরে দেখা যায়, প্রধান সড়ঁক থেকে বাজারের প্রবেশ পথের একটু সামনেই পশ্চিম পাশে দোকানঘরের সামনে টিনের বেড়াঁ দিয়ে আটকিয়ে কাঠমিস্ত্রীদের সঙ্গে নিয়ে মুরাদ মৃর্ধা নিজে তড়িঘড়ি করে দোকানঘর নির্মাণের কাজ করে চলেছেন।

এসময় তার কাছে সরকারি জায়গায় দোকান নির্মাণের কথা জানতে চাইলে তিনি বলেন, এটি আমার মালিকানা জায়গা।

আমি আমার মালিকানা জায়গায়ই দোকান উত্তোলন করতেছি।

এদিকে, নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক স্থানীয়রা জানান, আমাদের জানামতে, খালের ওই জায়গাটি সরকারি জায়গা।

কেননা, ওনি যে জায়গায় দোকানঘরটি উত্তোলন করিতেছেন, তার দোকান সংলগ্ন উত্তর ও দক্ষিন পাশের পূর্বের দোকানঘরের মালিকরা সরকারের কাছ থেকে ডিসি আর কেটে তাদের দোকান নির্মাণ করেছেন।

তাহলে, একই স্থানে মাঝখানে তার জায়গাটুকু কিভাবে শুধু মালিকানা হতে পারে তা আপনারাই বুঝেন।

এদিকে অভিযুক্ত, মুরাদ মৃর্ধার দোকান সংলগ্ন প্রতিবেশি অপর দোকানঘর মালিক চরভদ্রাসন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. সামচু মোল্যার কাছে তার দোকানের মালিকানার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি এ প্রতিবেদককে বলেন, আমার দোকানের জায়গা ডিসি আর কাটা, আমার জানামতে, মুরাদের পরের মুসার দোকানের জায়গাও ডিসি আর কাটা।

ফলে মাঝখানে ওর দোকানের জায়গা কিভাবে মালিকানা হতে পারে সেটাতো একমাত্র অ্যাসিল্যান্ডই বলতে পারবে বলে তিনি জানান।

এ ব্যাপারে ওই ইউনিয়নের ইউপি’ চেয়ারম্যান মো. আজাদ খা’ এর কাছে মুঠোফোনে জানতে চাইলে তিনি এ প্রতিবেদককে বলেন, আমার জানামতে ওই জায়গা ওদের নিজস্ব জায়গা।

এসময় তার কাছে একইস্থানে উক্ত দোকান সংলগ্ন অপর দোকান ঘরের জায়গা ডিসিআর কাটা হলে মাঝখানে শুধুমাত্র তার দোকানের জায়গাটুকু কিভাবে মালিকানা হয় জানতে চাইলে তিনি বলেন, এব্যাপারে তুমি খোঁজ নিয়ে দেখ।

সরকারি জায়গায় দোকানঘর উত্তোলনের বিষয়ে জানতে চাইলে, উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) শাহনাজ পারভীন বীথি বলেন, আমি তো এবিষয়টি এখনো জানিনা। আমি এব্যাপারে সরেজমিনে গিয়ে কাগজপত্র দেখে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা নিবো।

ট্যাগস :
Translate »

চরভদ্রাসনে সরকারি জায়গা দখল করে দােকানঘর নির্মাণ করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে

আপডেট সময় : ০৪:২২:০৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১ মার্চ ২০২৪

ফরিদপুর জেলা প্রতিনিধি:

ফরিদপুরের চরভদ্রাসনে সরকারি জায়গা দখল করে দোকানঘর নির্মাণ করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

উপজেলার সদর ইউনিয়নের মৌলভীরচর বাজারের পশ্চিম পাশে খালের উপড়ে এই দোকানটি নির্মাণ করা হচ্ছে।

দোকানটি নির্মাণ করেছেন ওই বাজারের দর্জি ব্যবসায়ী স্থানীয় সাজাহান মৃর্ধার ছেলে মুরাদ মৃর্ধা।

সরেজমিনে (১মার্চ) শুক্রবার দুপুরে বাজারটি ঘুরে দেখা যায়, প্রধান সড়ঁক থেকে বাজারের প্রবেশ পথের একটু সামনেই পশ্চিম পাশে দোকানঘরের সামনে টিনের বেড়াঁ দিয়ে আটকিয়ে কাঠমিস্ত্রীদের সঙ্গে নিয়ে মুরাদ মৃর্ধা নিজে তড়িঘড়ি করে দোকানঘর নির্মাণের কাজ করে চলেছেন।

এসময় তার কাছে সরকারি জায়গায় দোকান নির্মাণের কথা জানতে চাইলে তিনি বলেন, এটি আমার মালিকানা জায়গা।

আমি আমার মালিকানা জায়গায়ই দোকান উত্তোলন করতেছি।

এদিকে, নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক স্থানীয়রা জানান, আমাদের জানামতে, খালের ওই জায়গাটি সরকারি জায়গা।

কেননা, ওনি যে জায়গায় দোকানঘরটি উত্তোলন করিতেছেন, তার দোকান সংলগ্ন উত্তর ও দক্ষিন পাশের পূর্বের দোকানঘরের মালিকরা সরকারের কাছ থেকে ডিসি আর কেটে তাদের দোকান নির্মাণ করেছেন।

তাহলে, একই স্থানে মাঝখানে তার জায়গাটুকু কিভাবে শুধু মালিকানা হতে পারে তা আপনারাই বুঝেন।

এদিকে অভিযুক্ত, মুরাদ মৃর্ধার দোকান সংলগ্ন প্রতিবেশি অপর দোকানঘর মালিক চরভদ্রাসন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. সামচু মোল্যার কাছে তার দোকানের মালিকানার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি এ প্রতিবেদককে বলেন, আমার দোকানের জায়গা ডিসি আর কাটা, আমার জানামতে, মুরাদের পরের মুসার দোকানের জায়গাও ডিসি আর কাটা।

ফলে মাঝখানে ওর দোকানের জায়গা কিভাবে মালিকানা হতে পারে সেটাতো একমাত্র অ্যাসিল্যান্ডই বলতে পারবে বলে তিনি জানান।

এ ব্যাপারে ওই ইউনিয়নের ইউপি’ চেয়ারম্যান মো. আজাদ খা’ এর কাছে মুঠোফোনে জানতে চাইলে তিনি এ প্রতিবেদককে বলেন, আমার জানামতে ওই জায়গা ওদের নিজস্ব জায়গা।

এসময় তার কাছে একইস্থানে উক্ত দোকান সংলগ্ন অপর দোকান ঘরের জায়গা ডিসিআর কাটা হলে মাঝখানে শুধুমাত্র তার দোকানের জায়গাটুকু কিভাবে মালিকানা হয় জানতে চাইলে তিনি বলেন, এব্যাপারে তুমি খোঁজ নিয়ে দেখ।

সরকারি জায়গায় দোকানঘর উত্তোলনের বিষয়ে জানতে চাইলে, উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) শাহনাজ পারভীন বীথি বলেন, আমি তো এবিষয়টি এখনো জানিনা। আমি এব্যাপারে সরেজমিনে গিয়ে কাগজপত্র দেখে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা নিবো।