ঢাকা ১২:০১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
Logo যুব মাতৃ সেবক সামাজিক সংগঠন শিবপুর বটতলী বাজার ফেনী Logo শ্রীমঙ্গলে গৃহপালিত কুকুরের সঙ্গে বুনো শুকরের বন্ধুত্ব Logo শাহজাদপুরে ৬ দিনব্যাপী কৃষি মেলার শুভ উদ্বোধন Logo বিরামপুরে ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকের মাঝে বিনামূল্যে বীজ ও সার বিতরন Logo বিরামপুরের সর্প দর্শন বিষয়ক সচেতনতা মূলক সেমিনার অনুষ্ঠিত Logo পলাশবাড়ীতে বিআরডিবি সুফলভুগি সদস্যদের তিন দিনব্যাপী দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণের শুভ উদ্বোধন Logo ধর্মপাশায় ভুয়া প্রকল্পের বরাদ্দ দেখিয়ে 10 টন চাল আত্মসাৎ এর অভিযোগ Logo কুড়িগ্রামের ভোগ ডাঙ্গায় ওষুধ বাকি না দেওয়ায় ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ সেনা সদস্যের বিরুদ্ধে Logo বাংলাদেশের সকল অর্জন আওয়ামী লীগের হাত ধরে এসেছে: এমপি আলহাজ্ব এস এম আল মামুন Logo শ্রীপুরে বিয়ে ভেঙে যাওয়ায় ‘আত্মহত্যা করলেন যুবক

জনপ্রতিনিধি না হয়েও সেবামূলক কাজে নিয়োজিত নান্দাইলের শামছুল হাসান সাগর

জেনিফ নান্দাইল উপজেলা প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ০৮:১৯:৩৫ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১১ মার্চ ২০২৪ ১২২ বার পড়া হয়েছে

জেনিফ
নান্দাইল উপজেলা প্রতিনিধিঃ

জনপ্রতিনিধি না হয়েও সবসময় এলাকার সেবামূলক কাজে নিজেকে নিয়োজিত রেখেছেন ময়মনসিংহ নান্দাইল উপজেলার রসুলপুরের গ্রামের বাসিন্দা শামছুল হাসান সাগর।

সবার কাছে পরিচিত সাগর নামে।কারো কাছে তিনি একজন তরুণ সমাজসেবী, কারো কাছে অসহায় মানুষের বন্ধু। আবার অনেকেই তাকে বলেন গরিবের বন্ধু। সমাজের গরিব, অসহায়, দুস্থ, বিপদগ্রস্ত, পঙ্গু, প্রতিবন্ধী থেকে শুরু করে সকল শ্রেণি পেশার মানুষদের সাধ্যমতো সাহায্য-সহযোগিতা ও সেবা করাই যেন শামসুল হাসান সাগরের কাজ।

কোনো মানুষের বিপদের কথা শুনলে সবার আগে শামসুল হাসান সাগর। এখন অনেক কিছুই যেন নির্ভর করে তার উপর। দীর্ঘদিন তিনি মানবতার সেবায় এসব কাজ করছেন একেবারেই বিনাস্বার্থে। সকল ভালো কাজে অংশ নেওয়াটা তার যেন একমাত্র ব্রত। আর এভাবেই তিনি অনেকটা নীরবে নিভৃতে হাজার হাজার ভালো কাজে অংশ নিয়েছেন।তিনি রসুলপুর মানব কল্যাণ তহবিল নামে একটি সামাজিক স্বেচ্ছাসেবী সংঘটন প্রতিষ্ঠাটা করেছেন।এছাড়াও তিনি বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংঘটনের সাথে জড়িত।

২০২০ সালে মহামারি করোনা ভাইরাসের সংকটময় সময়ে জনপ্রতিনিধি না হয়েও অসহায় লোকজনের সেবায় সব সময়ই তিনি ছিলেন উদার।
তিনি জানান ছোটবেলা থেকেই তার জনসেবামূলক কাজ করার অনেক ইচ্ছা ছিল। তাই সুযোগ পেলেই স্বল্প পরিসরে লোকজনকে সহায়তা করতেন। তিনি পরম্পরায় বিভিন্ন সেবামূলক কাজ করে যাচ্ছেন এবং আগামীতেও তা অব্যাহত রাখবে। এখন যে জনসেবামূলক কাজ করছেন তা ব্যাপক আকারে করার চেষ্টা চালাচ্ছেও বলে জানান।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি আরো জানান, তিনি অসহায় মানুষের বাড়িতে খাবার পৌঁছে দেওয়া, অসহায় মানুষের মাঝে ঈদ উপহার, মসজিদ নির্মাণে সহযোগিতা, বিভিন্ন স্থানে-প্রতিষ্ঠানে গাছ লাগানো, গরিবের মাঝে কম্বল ও মাংস বিতরণ, দুস্থ মানুষদের সঙ্গে নিয়ে চিকিৎসা করানো, ঘর নির্মাণ,
প্রতিবন্ধী-মানসিক রোগীদের সঙ্গে নিয়ে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা, পাখিদের নীড়ের ব্যবস্থা, পশু-পাখিদের খাবার দেওয়া। হারানো শিশুদের উদ্ধারে সহায়তা, পঙ্গুদের মাঝে হুইল চেয়ার বিতরণসহ বিভিন্ন ধরনের কাজে তার অংশগ্রহণের দৃষ্টান্ত রয়েছে।

দান-খয়রাত বা জনগণের সেবামূলক যেসব কাজ করেন এসবের পেছনে আপনার কোনো উদ্দেশ্য আছে কিনা? জানতে চাইলে সে বলেন না। এসবের মধ্যে আমার কোনো স্বার্থ বা উদ্দেশ্য নেই। আমি শুধুমাত্র জনসেবামূলক কাজ করি। এর পেছনে আমার অন্য কোনো ধরনের স্বার্থ নেই।

আমি শুধু একটা জিনিসই করতে চাই, সেটা হলো জনপ্রতিনিধি না হয়েই রসুলপুর জনসেবামূলক কাজ করব। এটাই আমার মূল উদ্দেশ্য, আর কোনো উদ্দেশ্য নেই। আমি শুধু জনসেবামূলক কাজ করব, বাকি জীবনও এই কাজই করব। পরিশেষে ওনার জন্য সবাই দোয়া করবেন নিজ এলাকা রসুলপুর গ্রামের অসহায় হতদরিদ্র মানুষের কল্যাণে বেশি করে কাজ করতে পারে।

ট্যাগস :
Translate »

জনপ্রতিনিধি না হয়েও সেবামূলক কাজে নিয়োজিত নান্দাইলের শামছুল হাসান সাগর

আপডেট সময় : ০৮:১৯:৩৫ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১১ মার্চ ২০২৪

জেনিফ
নান্দাইল উপজেলা প্রতিনিধিঃ

জনপ্রতিনিধি না হয়েও সবসময় এলাকার সেবামূলক কাজে নিজেকে নিয়োজিত রেখেছেন ময়মনসিংহ নান্দাইল উপজেলার রসুলপুরের গ্রামের বাসিন্দা শামছুল হাসান সাগর।

সবার কাছে পরিচিত সাগর নামে।কারো কাছে তিনি একজন তরুণ সমাজসেবী, কারো কাছে অসহায় মানুষের বন্ধু। আবার অনেকেই তাকে বলেন গরিবের বন্ধু। সমাজের গরিব, অসহায়, দুস্থ, বিপদগ্রস্ত, পঙ্গু, প্রতিবন্ধী থেকে শুরু করে সকল শ্রেণি পেশার মানুষদের সাধ্যমতো সাহায্য-সহযোগিতা ও সেবা করাই যেন শামসুল হাসান সাগরের কাজ।

কোনো মানুষের বিপদের কথা শুনলে সবার আগে শামসুল হাসান সাগর। এখন অনেক কিছুই যেন নির্ভর করে তার উপর। দীর্ঘদিন তিনি মানবতার সেবায় এসব কাজ করছেন একেবারেই বিনাস্বার্থে। সকল ভালো কাজে অংশ নেওয়াটা তার যেন একমাত্র ব্রত। আর এভাবেই তিনি অনেকটা নীরবে নিভৃতে হাজার হাজার ভালো কাজে অংশ নিয়েছেন।তিনি রসুলপুর মানব কল্যাণ তহবিল নামে একটি সামাজিক স্বেচ্ছাসেবী সংঘটন প্রতিষ্ঠাটা করেছেন।এছাড়াও তিনি বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংঘটনের সাথে জড়িত।

২০২০ সালে মহামারি করোনা ভাইরাসের সংকটময় সময়ে জনপ্রতিনিধি না হয়েও অসহায় লোকজনের সেবায় সব সময়ই তিনি ছিলেন উদার।
তিনি জানান ছোটবেলা থেকেই তার জনসেবামূলক কাজ করার অনেক ইচ্ছা ছিল। তাই সুযোগ পেলেই স্বল্প পরিসরে লোকজনকে সহায়তা করতেন। তিনি পরম্পরায় বিভিন্ন সেবামূলক কাজ করে যাচ্ছেন এবং আগামীতেও তা অব্যাহত রাখবে। এখন যে জনসেবামূলক কাজ করছেন তা ব্যাপক আকারে করার চেষ্টা চালাচ্ছেও বলে জানান।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি আরো জানান, তিনি অসহায় মানুষের বাড়িতে খাবার পৌঁছে দেওয়া, অসহায় মানুষের মাঝে ঈদ উপহার, মসজিদ নির্মাণে সহযোগিতা, বিভিন্ন স্থানে-প্রতিষ্ঠানে গাছ লাগানো, গরিবের মাঝে কম্বল ও মাংস বিতরণ, দুস্থ মানুষদের সঙ্গে নিয়ে চিকিৎসা করানো, ঘর নির্মাণ,
প্রতিবন্ধী-মানসিক রোগীদের সঙ্গে নিয়ে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা, পাখিদের নীড়ের ব্যবস্থা, পশু-পাখিদের খাবার দেওয়া। হারানো শিশুদের উদ্ধারে সহায়তা, পঙ্গুদের মাঝে হুইল চেয়ার বিতরণসহ বিভিন্ন ধরনের কাজে তার অংশগ্রহণের দৃষ্টান্ত রয়েছে।

দান-খয়রাত বা জনগণের সেবামূলক যেসব কাজ করেন এসবের পেছনে আপনার কোনো উদ্দেশ্য আছে কিনা? জানতে চাইলে সে বলেন না। এসবের মধ্যে আমার কোনো স্বার্থ বা উদ্দেশ্য নেই। আমি শুধুমাত্র জনসেবামূলক কাজ করি। এর পেছনে আমার অন্য কোনো ধরনের স্বার্থ নেই।

আমি শুধু একটা জিনিসই করতে চাই, সেটা হলো জনপ্রতিনিধি না হয়েই রসুলপুর জনসেবামূলক কাজ করব। এটাই আমার মূল উদ্দেশ্য, আর কোনো উদ্দেশ্য নেই। আমি শুধু জনসেবামূলক কাজ করব, বাকি জীবনও এই কাজই করব। পরিশেষে ওনার জন্য সবাই দোয়া করবেন নিজ এলাকা রসুলপুর গ্রামের অসহায় হতদরিদ্র মানুষের কল্যাণে বেশি করে কাজ করতে পারে।