ঢাকা ১০:৪৩ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
Logo ঈদের আনন্দে প্রবাসীরা কতটুকু হাসি খুশি থাকে Logo ঈদুল আযাহার নামাজ আদায় চকশৈল্যা বাজার ঈদগাহ মাঠে। Logo বিরামপুরে সৌদির সাথে মিল রেখে ১৫টি গ্রামের পরিবারে ঈদুল আজহা উদযাপন Logo শেরপুরে পবিত্র ঈদুল আযহার উপলক্ষে শুভেচ্ছা ও আর্থিক সহায়তা দিলেন ছানুয়ার হোসেন ছানু এমপি Logo “দৈনিক বর্তমান সংবাদের নির্বাহী সম্পাদক ও এশিয়ান টিভি ভালুকা প্রতিনিধি”মো:কামরুল ইসলাম “পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা Logo “প্রেসক্লাব ভালুকা “সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম”পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা Logo “দৈনিক বর্তমান সংবাদের সহ সম্পাদক “সেরাজুর ইসলাম সিরাজ “পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা Logo দৈনিক বর্তমান সংবাদের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক “সুমন মিয়া “পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা Logo “দৈনিক বর্তমান সংবাদের প্রকাশক ও সম্পাদক”মামুন হাসান বিএ”পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা Logo ঈদ আগাম বুকিং কম চায়ের রাজ্য শ্রীমঙ্গলে

পাওনা টাকা চাওয়া কে কেন্দ্র করেই মামা মামি এবং ছোট বোন কে ধারালো অস্ত্র দিয়ে গলাকেটে নৃশংস ভাবে হত্যা করে আপন ভাগিনা রাজিব সরকার

মো: সোহরাওয়ার্দী হোসেন: স্টাফ রিপোর্টার সিরাজগঞ্জ
  • আপডেট সময় : ১০:৪৩:৩৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৪ ৫৫ বার পড়া হয়েছে

মো: সোহরাওয়ার্দী হোসেন: স্টাফ রিপোর্টার সিরাজগঞ্জ

সিরাজগঞ্জের তাড়াশের আলোচিত ট্রিপল মার্ডার মামলার মুল আসামী রাজীব কুমার ভৌমিক কে গ্রেফতারের পরই বেরিয়ে আসে চাঞ্চল্যকর এই তথ্য। উদ্ধার করা হয়েছে হত্যায় ব্যবহৃত দেশীয় অস্ত্র। বুধবার বিকেলে এক সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানিয়েছেন সিরাজগঞ্জের পুলিশ সুপার আরিফুর রহমান মন্ডল। এসময় তিনি বলেন ২০২১ সাল থেকে মামা বিকাশ চন্দ্র সরকারের সাথে যৌথভাবে খাদ্যশস্য কেনাবেচার ব্যবসায় যুক্ত হয় ভাগিনা রাজীব ভৌমিক। নিহত বিকাশ সরকার তার ভাগিনা রাজীব কে ব্যবসার পূজি হিসেবে ২০ লক্ষ টাকা দেন। ব্যবসা চলমান থাকা অবস্থায় রাজীব তার মামাকে বিভিন্ন ধাপে ব্যবসার লভ্যাংশ’সহ প্রায় ২৬ লক্ষ টাকা ফেরত দেয় এবং চলতি বছরে এসে ভাগিনার কাছে কাছে তার মামা অতিরিক্ত আরো ৩৫ লক্ষ টাকা দাবী করেন। গত ২২ জানুয়ারি সকালে ভাগিনার বাড়িতে গিয়ে ৭-৮ দিনের মধ্যে টাকা ফেরত দেয়ার জন্য চাপ দেয় এবং তার মা কে বকাবকি করে। রাজীব টাকা ম্যানেজ করতে ব্যর্থ হওয়ায় এবং মামার বকাবকিতে ক্ষিপ্ত হয়ে তার মামাসহ পুরো পরিবারকে হত্যার পরিকল্পনা করে। এর একপর্যায়ে ২৭ জানুয়ারি শনিবার সন্ধ্যায় মামাকে ফোন করে পাওনা টাকা দিতে তাড়াশ বারোয়ারি বটতলা মামার বাসায় আসে। মামা বাড়িতে আসার সময় তিনি বাজারের ব্যাগে করে একটি হাসুয়া এবং ২শ৫০ টাকা দিয়ে একটি ৩ সারে ৩ কেজী ওজনের লোহার রড কিনে নিয়ে আসেন। মামা বাড়িতে এসে তিনি দেখেন মামা বাহিরে আছেন। মামা বাহিরে থাকায় মামী ভাগিনা কে আপ্যায়ন করার জন্য কফি আনতে বাসার নিচে দোকানে গেলে রাজীব ব্যাগে করে আনা লোহার রড দিয়ে তার মামাতো বোন দশম শ্রেণীর ছাত্রী পারমিতা সরকার তুষির মাথায় উপর্যুপুরি আঘাত করে পরে হাসুয়া দিয়ে গলা কেটে মুত্যু নিশ্চিত করে। ইতোমধ্যে তার মামী কফি কিনে বাসায় প্রবেশ করলে একইভাবে তার মামী স্বর্ণা সরকারকে রড দিয়ে মাথায় আঘাত করে এবং গলাকেটে হত্যা নিশ্চিত করে। এর কিছুক্ষণ পর মামা বিকাশ সরকার বাড়িতে এলে একই ভাবে রডদিয়ে পিটিয়ে এবং গলাকেটে হত্যা করে ঘড়ে তালা লাগিয়ে মটর সাইকেলে করে নিজ বাড়িতে চলে যায়। যাবার পথে হত্যায় ব্যবহৃত লোহার রড টি একটি পুকুরে ফেলে যায় আর হাসুয়াটি বাড়িতে নিয়ে যায়। মঙ্গলবার রাতে নিহত স্বর্ণা সরকারের ভাই সুকমল সাহা বাদী হয়ে অজ্ঞাত

ট্যাগস :
Translate »

পাওনা টাকা চাওয়া কে কেন্দ্র করেই মামা মামি এবং ছোট বোন কে ধারালো অস্ত্র দিয়ে গলাকেটে নৃশংস ভাবে হত্যা করে আপন ভাগিনা রাজিব সরকার

আপডেট সময় : ১০:৪৩:৩৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৪

মো: সোহরাওয়ার্দী হোসেন: স্টাফ রিপোর্টার সিরাজগঞ্জ

সিরাজগঞ্জের তাড়াশের আলোচিত ট্রিপল মার্ডার মামলার মুল আসামী রাজীব কুমার ভৌমিক কে গ্রেফতারের পরই বেরিয়ে আসে চাঞ্চল্যকর এই তথ্য। উদ্ধার করা হয়েছে হত্যায় ব্যবহৃত দেশীয় অস্ত্র। বুধবার বিকেলে এক সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানিয়েছেন সিরাজগঞ্জের পুলিশ সুপার আরিফুর রহমান মন্ডল। এসময় তিনি বলেন ২০২১ সাল থেকে মামা বিকাশ চন্দ্র সরকারের সাথে যৌথভাবে খাদ্যশস্য কেনাবেচার ব্যবসায় যুক্ত হয় ভাগিনা রাজীব ভৌমিক। নিহত বিকাশ সরকার তার ভাগিনা রাজীব কে ব্যবসার পূজি হিসেবে ২০ লক্ষ টাকা দেন। ব্যবসা চলমান থাকা অবস্থায় রাজীব তার মামাকে বিভিন্ন ধাপে ব্যবসার লভ্যাংশ’সহ প্রায় ২৬ লক্ষ টাকা ফেরত দেয় এবং চলতি বছরে এসে ভাগিনার কাছে কাছে তার মামা অতিরিক্ত আরো ৩৫ লক্ষ টাকা দাবী করেন। গত ২২ জানুয়ারি সকালে ভাগিনার বাড়িতে গিয়ে ৭-৮ দিনের মধ্যে টাকা ফেরত দেয়ার জন্য চাপ দেয় এবং তার মা কে বকাবকি করে। রাজীব টাকা ম্যানেজ করতে ব্যর্থ হওয়ায় এবং মামার বকাবকিতে ক্ষিপ্ত হয়ে তার মামাসহ পুরো পরিবারকে হত্যার পরিকল্পনা করে। এর একপর্যায়ে ২৭ জানুয়ারি শনিবার সন্ধ্যায় মামাকে ফোন করে পাওনা টাকা দিতে তাড়াশ বারোয়ারি বটতলা মামার বাসায় আসে। মামা বাড়িতে আসার সময় তিনি বাজারের ব্যাগে করে একটি হাসুয়া এবং ২শ৫০ টাকা দিয়ে একটি ৩ সারে ৩ কেজী ওজনের লোহার রড কিনে নিয়ে আসেন। মামা বাড়িতে এসে তিনি দেখেন মামা বাহিরে আছেন। মামা বাহিরে থাকায় মামী ভাগিনা কে আপ্যায়ন করার জন্য কফি আনতে বাসার নিচে দোকানে গেলে রাজীব ব্যাগে করে আনা লোহার রড দিয়ে তার মামাতো বোন দশম শ্রেণীর ছাত্রী পারমিতা সরকার তুষির মাথায় উপর্যুপুরি আঘাত করে পরে হাসুয়া দিয়ে গলা কেটে মুত্যু নিশ্চিত করে। ইতোমধ্যে তার মামী কফি কিনে বাসায় প্রবেশ করলে একইভাবে তার মামী স্বর্ণা সরকারকে রড দিয়ে মাথায় আঘাত করে এবং গলাকেটে হত্যা নিশ্চিত করে। এর কিছুক্ষণ পর মামা বিকাশ সরকার বাড়িতে এলে একই ভাবে রডদিয়ে পিটিয়ে এবং গলাকেটে হত্যা করে ঘড়ে তালা লাগিয়ে মটর সাইকেলে করে নিজ বাড়িতে চলে যায়। যাবার পথে হত্যায় ব্যবহৃত লোহার রড টি একটি পুকুরে ফেলে যায় আর হাসুয়াটি বাড়িতে নিয়ে যায়। মঙ্গলবার রাতে নিহত স্বর্ণা সরকারের ভাই সুকমল সাহা বাদী হয়ে অজ্ঞাত