ঢাকা ১০:৪৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
Logo ঈদের আনন্দে প্রবাসীরা কতটুকু হাসি খুশি থাকে Logo ঈদুল আযাহার নামাজ আদায় চকশৈল্যা বাজার ঈদগাহ মাঠে। Logo বিরামপুরে সৌদির সাথে মিল রেখে ১৫টি গ্রামের পরিবারে ঈদুল আজহা উদযাপন Logo শেরপুরে পবিত্র ঈদুল আযহার উপলক্ষে শুভেচ্ছা ও আর্থিক সহায়তা দিলেন ছানুয়ার হোসেন ছানু এমপি Logo “দৈনিক বর্তমান সংবাদের নির্বাহী সম্পাদক ও এশিয়ান টিভি ভালুকা প্রতিনিধি”মো:কামরুল ইসলাম “পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা Logo “প্রেসক্লাব ভালুকা “সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম”পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা Logo “দৈনিক বর্তমান সংবাদের সহ সম্পাদক “সেরাজুর ইসলাম সিরাজ “পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা Logo দৈনিক বর্তমান সংবাদের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক “সুমন মিয়া “পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা Logo “দৈনিক বর্তমান সংবাদের প্রকাশক ও সম্পাদক”মামুন হাসান বিএ”পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা Logo ঈদ আগাম বুকিং কম চায়ের রাজ্য শ্রীমঙ্গলে

ফেনীর ফাজিলপুরে দৃষ্টিনন্দন মসজিদ “মসজিদ-ই-আলী” এর উদ্বোধন।

তমিজ উদ্দিন চৌধুরী
  • আপডেট সময় : ০৬:৫৩:২১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১ মার্চ ২০২৪ ৯০ বার পড়া হয়েছে

তমিজ উদ্দিন চৌধুরী,
স্টাফ রিপোর্টার-ফেনী।

আনুষ্ঠানিক ভাবে মসজিদ উদ্বোধন করার শরীয়ত সম্মত কোন বিধান নেই। মসজিদ এর দায়িত্বশীল গন আযান দিয়ে নতুন মসজিদে সালাত আদায় শুরু করবেন। তবে মসজিদ সালাত আদায়ের উপযোগী হয়ে গেলে তা লোকদের জানানো যেতে পারে এবং সালাতের প্রতি উৎসাহিত করতে কুরআন ও হাদীস ভিত্তিক বক্তব্য দেয়া যেতে পারে। তখন সেটা দাওয়াতী প্রোগ্রাম হিসাবে গণ্য হবে। গতকাল ২৯/০২/২৪২৪ ইং রোজ বৃহস্পতি বার মাগরিব এর আযান এর মাধ্যমে “মসজিদ-ই-আলী”এর আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরু হল। অর্থাৎ মাগরিব এর সালাত এর মাধ্যমে মসজিদ টি উদ্বোধন করা হল। যদিও আজ দুপুরে জুমার সালাত আদায় করার জন্য ওয়ালী সমাজ ও আশ-পাশের হাজার হাজার মানুষ কে দাওয়াত দেওয়া হয়েছে। দুপুরে খাবার আয়োজন করা হয়েছে কয়েক হাজার মানুষের জন্য। মসজিদের পাশের জমিতে বিশাল দুটি প্যান্ডেলে ৭টি গরু জবাই করে এই ভোজের আয়োজন করা হয়। ফেনী সদর উপজেলার ফাজিলপুর ইউনিয়নের পশ্চিম ফাজিলপুর “ওয়ালী ভূঁইয়া বাড়ীর” সামানে এই মসজিদ এর অবস্থান। বৃহস্পতিবার বাদ মাগরিব ধর্মপ্রান মুসল্লি, আত্নীয় স্বজন ও সমাজ বাসীদের নিয়ে মিলাদে অংশ নেন “মসজিদ-ই-আলী”এর প্রতিষ্ঠাতা জেনিথ ফার্মাসিটিক্যাল এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক, রোটারিয়ান ড. বেলাল উদ্দিন আহাম্মদ। ব্যসায়ীক কারণে দীর্ঘ দিন এলাকার বাইরে থাকলেও নাড়ীর টান ঠিকই আছে এ সমাজ সেবক ও দানশীল ব্যাক্তির। ফাজিলপুরে স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা সহ বহু শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন সাথী এই শিক্ষানুরাগী ব্যাক্তি। তাই তো বাল্য স্মৃতি বিজড়িত পিতৃভূমি ওয়ালী ভূঁইয়া বাড়ীর দামনে গড়ে তুলেছেন প্রাসাদ সম অট্টালিকা। বিলাশ বহুল আলিসান ভবনে করেছেন নানান কারুকাজ। স্থাপন করেন ফোয়ারা, দেশী বিদেশী ফুল গাছের সমারোহে গড়ে তুলেছেন ফুল বাগান। বাড়ীর সামনেই গড়েছেন আধুনিক সুযোগ-সুবিধা ও নানান কারুকার্য করা দৃষ্টিনন্দন মসজিদ কমপ্লেক্স, নাম মসজিদ-ই-আলী। জানতে ছেয়েছিলাম কেন সসজিদ এর এমন নাম। উত্তরে বল্লেন বাবার স্মৃতিতে করা মসজিদ এর নাম করলাম বাবার নামে। উল্লেখ্য যে, ড. বেলাল উদ্দিন আহাম্মদ এর বাবার নাম মরহুম আলী আহাম্মদ ভূঁইয়া। বাড়ী ও মসজিদ দুটি আলাদা প্লট, মাঝখানে চলাচলের রাস্তা। বাড়ীর বেলকনি বা অঙ্গনে দাঁড়ালেই দেখা যাবে মসজিদ-ই-আলী, আবার মসজিদ এর সামনে বা পাশে দাঁড়ালেই দেখা যাবে দৃষ্টি নন্দন বাড়ী।

ট্যাগস :
Translate »

ফেনীর ফাজিলপুরে দৃষ্টিনন্দন মসজিদ “মসজিদ-ই-আলী” এর উদ্বোধন।

আপডেট সময় : ০৬:৫৩:২১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১ মার্চ ২০২৪

তমিজ উদ্দিন চৌধুরী,
স্টাফ রিপোর্টার-ফেনী।

আনুষ্ঠানিক ভাবে মসজিদ উদ্বোধন করার শরীয়ত সম্মত কোন বিধান নেই। মসজিদ এর দায়িত্বশীল গন আযান দিয়ে নতুন মসজিদে সালাত আদায় শুরু করবেন। তবে মসজিদ সালাত আদায়ের উপযোগী হয়ে গেলে তা লোকদের জানানো যেতে পারে এবং সালাতের প্রতি উৎসাহিত করতে কুরআন ও হাদীস ভিত্তিক বক্তব্য দেয়া যেতে পারে। তখন সেটা দাওয়াতী প্রোগ্রাম হিসাবে গণ্য হবে। গতকাল ২৯/০২/২৪২৪ ইং রোজ বৃহস্পতি বার মাগরিব এর আযান এর মাধ্যমে “মসজিদ-ই-আলী”এর আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরু হল। অর্থাৎ মাগরিব এর সালাত এর মাধ্যমে মসজিদ টি উদ্বোধন করা হল। যদিও আজ দুপুরে জুমার সালাত আদায় করার জন্য ওয়ালী সমাজ ও আশ-পাশের হাজার হাজার মানুষ কে দাওয়াত দেওয়া হয়েছে। দুপুরে খাবার আয়োজন করা হয়েছে কয়েক হাজার মানুষের জন্য। মসজিদের পাশের জমিতে বিশাল দুটি প্যান্ডেলে ৭টি গরু জবাই করে এই ভোজের আয়োজন করা হয়। ফেনী সদর উপজেলার ফাজিলপুর ইউনিয়নের পশ্চিম ফাজিলপুর “ওয়ালী ভূঁইয়া বাড়ীর” সামানে এই মসজিদ এর অবস্থান। বৃহস্পতিবার বাদ মাগরিব ধর্মপ্রান মুসল্লি, আত্নীয় স্বজন ও সমাজ বাসীদের নিয়ে মিলাদে অংশ নেন “মসজিদ-ই-আলী”এর প্রতিষ্ঠাতা জেনিথ ফার্মাসিটিক্যাল এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক, রোটারিয়ান ড. বেলাল উদ্দিন আহাম্মদ। ব্যসায়ীক কারণে দীর্ঘ দিন এলাকার বাইরে থাকলেও নাড়ীর টান ঠিকই আছে এ সমাজ সেবক ও দানশীল ব্যাক্তির। ফাজিলপুরে স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা সহ বহু শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন সাথী এই শিক্ষানুরাগী ব্যাক্তি। তাই তো বাল্য স্মৃতি বিজড়িত পিতৃভূমি ওয়ালী ভূঁইয়া বাড়ীর দামনে গড়ে তুলেছেন প্রাসাদ সম অট্টালিকা। বিলাশ বহুল আলিসান ভবনে করেছেন নানান কারুকাজ। স্থাপন করেন ফোয়ারা, দেশী বিদেশী ফুল গাছের সমারোহে গড়ে তুলেছেন ফুল বাগান। বাড়ীর সামনেই গড়েছেন আধুনিক সুযোগ-সুবিধা ও নানান কারুকার্য করা দৃষ্টিনন্দন মসজিদ কমপ্লেক্স, নাম মসজিদ-ই-আলী। জানতে ছেয়েছিলাম কেন সসজিদ এর এমন নাম। উত্তরে বল্লেন বাবার স্মৃতিতে করা মসজিদ এর নাম করলাম বাবার নামে। উল্লেখ্য যে, ড. বেলাল উদ্দিন আহাম্মদ এর বাবার নাম মরহুম আলী আহাম্মদ ভূঁইয়া। বাড়ী ও মসজিদ দুটি আলাদা প্লট, মাঝখানে চলাচলের রাস্তা। বাড়ীর বেলকনি বা অঙ্গনে দাঁড়ালেই দেখা যাবে মসজিদ-ই-আলী, আবার মসজিদ এর সামনে বা পাশে দাঁড়ালেই দেখা যাবে দৃষ্টি নন্দন বাড়ী।