ঢাকা ০৭:২৪ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ৩ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
Logo বিরামপুরে সৌদির সাথে মিল রেখে ১৫টি গ্রামের পরিবারে ঈদুল আজহা উদযাপন Logo শেরপুরে পবিত্র ঈদুল আযহার উপলক্ষে শুভেচ্ছা ও আর্থিক সহায়তা দিলেন ছানুয়ার হোসেন ছানু এমপি Logo “দৈনিক বর্তমান সংবাদের নির্বাহী সম্পাদক ও এশিয়ান টিভি ভালুকা প্রতিনিধি”মো:কামরুল ইসলাম “পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা Logo “প্রেসক্লাব ভালুকা “সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম”পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা Logo “দৈনিক বর্তমান সংবাদের সহ সম্পাদক “সেরাজুর ইসলাম সিরাজ “পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা Logo দৈনিক বর্তমান সংবাদের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক “সুমন মিয়া “পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা Logo “দৈনিক বর্তমান সংবাদের প্রকাশক ও সম্পাদক”মামুন হাসান বিএ”পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা Logo ঈদ আগাম বুকিং কম চায়ের রাজ্য শ্রীমঙ্গলে Logo বিরামপুরে সৌদির সাথে মিল রেখে ১৫টি গ্রামের পরিবারে ঈদুল আজহা উদযাপন Logo শাহজাদপুর উপজেলা কৃষকলীগ সাধারণ সম্পাদকের পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা।

বাংলাদেশের পরিকল্পনামন্ত্রী হলেন নান্দাইলের আব্দুস সালাম

জেনিফ
  • আপডেট সময় : ০৫:৪৬:৪৩ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ জানুয়ারী ২০২৪ ৮৯ বার পড়া হয়েছে

জেনিফ নান্দাইল উপজেলা প্রতিনিধি
দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ময়মনসিংহ-৯ (নান্দাইল) আসন থেকে বিজয়ী মেজর জেনারেল আব্দুস সালাম মন্ত্রীসভায় পরিকল্পনামন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পেয়েছেন। এর মধ্য দিয়ে স্বাধীনতার পর প্রথমবারের মতো মন্ত্রী পেল নান্দাইলবাসী। বর্তমান সরকারে ময়মনসিংহ জেলাবাসী পূর্ণ মন্ত্রী পাওয়ায় জেলা আওয়ামী লীগ, ময়মনসিংহ বিভাগীয় প্রেসক্লাব, ১৪ দল, বিভিন্ন রাজনৈতিক সামাজিক সংস্কৃতিক সংগঠনসহ সর্বস্তরের মানুষ আনন্দ প্রকাশ করছেন।

নান্দাইল উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম শাহান বলেন, স্বাধীনতার পর নান্দাইলের জনগণ কোনো মন্ত্রী পায়নি। এবার আমরা নান্দাইলবাসী একজন পূর্ণ মন্ত্রী পেয়েছি। নবনির্বাচিত সংসদ সদস্য আব্দুস সালামের মাধ্যমে আমাদের বহুল কাঙ্ক্ষিত সাধ পূর্ণ হলো।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে মেজর জেনারেল আব্দুস সালাম ৮২ হাজার ৩৭১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী আনোয়ারুল আবেদীন খান তুহিন ঈগল প্রতীক ৬৩ হাজার ১০০ ভোট পেয়ে পরাজিত হন।

 আব্দুস সালাম ময়মনসিংহ জেলার নান্দাইল উপজেলার রসুলপুর গ্রামে ১৯৪২ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি জন্মগ্রহণ করেন। তিনি বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে মেজর জেনারেল পদে কর্মরত অবস্থায় অবসর গ্রহণ করেন। অবসরে এসে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগে যোগদান করেন তিনি। বর্তমানে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

তিনি ময়মনসিংহ-৯ (নান্দাইল) আসনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী হিসাবে নৌকা প্রতীকে সপ্তম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে (১৯৯৬ সালের ১২ জুন) প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী জাতীয় পার্টির জহুরুল ইসলাম খানের (লাঙ্গল প্রতীক) চেয়ে ১১ হাজার ৬৬০ ভোট বেশি ও নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে (২০০৮ সালের ২৯ ডিসেম্বর ) প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী বিএনপির খুররম খান চৌধুরীর (ধানের শীষ) চেয়ে ৭০ হাজার ৪৬৬ ভোট বেশি পেয়ে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। সর্বশেষ দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে (৭ জানুয়ারি ২০২৪) নৌকা প্রতীক নিয়ে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী ঈগল প্রতীকের আনোয়ারুল আবেদীন খান তুহিনকে পরাজিত করেন ১৯ হাজার ২৭১ ভোটে।

পরিকল্পনামন্ত্রী আব্দুস সালামসহ মন্ত্রীপরিষদের সদস্যদের প্রতি আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ও মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি মো. ইকরামুল হক টিটু, ময়মনসিংহ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি মো. আমিনুল হক শামীম, ময়মনসিংহ জেলা নাগরিক আন্দোলনের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রকৌশলী নুরুল আমিন কালাম, ময়মনসিংহ বিভাগীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা এফ এম এ সালাম ও সাধারণ সম্পাদক মো. নজরুল ইসলাম এবং নান্দাইল প্রেসক্লাবের সভাপতি মো. এনামুল হক বাবুল প্রমুখ।

ট্যাগস :
Translate »

বাংলাদেশের পরিকল্পনামন্ত্রী হলেন নান্দাইলের আব্দুস সালাম

আপডেট সময় : ০৫:৪৬:৪৩ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ জানুয়ারী ২০২৪

জেনিফ নান্দাইল উপজেলা প্রতিনিধি
দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ময়মনসিংহ-৯ (নান্দাইল) আসন থেকে বিজয়ী মেজর জেনারেল আব্দুস সালাম মন্ত্রীসভায় পরিকল্পনামন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পেয়েছেন। এর মধ্য দিয়ে স্বাধীনতার পর প্রথমবারের মতো মন্ত্রী পেল নান্দাইলবাসী। বর্তমান সরকারে ময়মনসিংহ জেলাবাসী পূর্ণ মন্ত্রী পাওয়ায় জেলা আওয়ামী লীগ, ময়মনসিংহ বিভাগীয় প্রেসক্লাব, ১৪ দল, বিভিন্ন রাজনৈতিক সামাজিক সংস্কৃতিক সংগঠনসহ সর্বস্তরের মানুষ আনন্দ প্রকাশ করছেন।

নান্দাইল উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম শাহান বলেন, স্বাধীনতার পর নান্দাইলের জনগণ কোনো মন্ত্রী পায়নি। এবার আমরা নান্দাইলবাসী একজন পূর্ণ মন্ত্রী পেয়েছি। নবনির্বাচিত সংসদ সদস্য আব্দুস সালামের মাধ্যমে আমাদের বহুল কাঙ্ক্ষিত সাধ পূর্ণ হলো।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে মেজর জেনারেল আব্দুস সালাম ৮২ হাজার ৩৭১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী আনোয়ারুল আবেদীন খান তুহিন ঈগল প্রতীক ৬৩ হাজার ১০০ ভোট পেয়ে পরাজিত হন।

 আব্দুস সালাম ময়মনসিংহ জেলার নান্দাইল উপজেলার রসুলপুর গ্রামে ১৯৪২ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি জন্মগ্রহণ করেন। তিনি বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে মেজর জেনারেল পদে কর্মরত অবস্থায় অবসর গ্রহণ করেন। অবসরে এসে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগে যোগদান করেন তিনি। বর্তমানে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

তিনি ময়মনসিংহ-৯ (নান্দাইল) আসনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী হিসাবে নৌকা প্রতীকে সপ্তম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে (১৯৯৬ সালের ১২ জুন) প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী জাতীয় পার্টির জহুরুল ইসলাম খানের (লাঙ্গল প্রতীক) চেয়ে ১১ হাজার ৬৬০ ভোট বেশি ও নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে (২০০৮ সালের ২৯ ডিসেম্বর ) প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী বিএনপির খুররম খান চৌধুরীর (ধানের শীষ) চেয়ে ৭০ হাজার ৪৬৬ ভোট বেশি পেয়ে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। সর্বশেষ দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে (৭ জানুয়ারি ২০২৪) নৌকা প্রতীক নিয়ে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী ঈগল প্রতীকের আনোয়ারুল আবেদীন খান তুহিনকে পরাজিত করেন ১৯ হাজার ২৭১ ভোটে।

পরিকল্পনামন্ত্রী আব্দুস সালামসহ মন্ত্রীপরিষদের সদস্যদের প্রতি আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ও মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি মো. ইকরামুল হক টিটু, ময়মনসিংহ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি মো. আমিনুল হক শামীম, ময়মনসিংহ জেলা নাগরিক আন্দোলনের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রকৌশলী নুরুল আমিন কালাম, ময়মনসিংহ বিভাগীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা এফ এম এ সালাম ও সাধারণ সম্পাদক মো. নজরুল ইসলাম এবং নান্দাইল প্রেসক্লাবের সভাপতি মো. এনামুল হক বাবুল প্রমুখ।