ঢাকা ১১:২৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
Logo ঈদের আনন্দে প্রবাসীরা কতটুকু হাসি খুশি থাকে Logo ঈদুল আযাহার নামাজ আদায় চকশৈল্যা বাজার ঈদগাহ মাঠে। Logo বিরামপুরে সৌদির সাথে মিল রেখে ১৫টি গ্রামের পরিবারে ঈদুল আজহা উদযাপন Logo শেরপুরে পবিত্র ঈদুল আযহার উপলক্ষে শুভেচ্ছা ও আর্থিক সহায়তা দিলেন ছানুয়ার হোসেন ছানু এমপি Logo “দৈনিক বর্তমান সংবাদের নির্বাহী সম্পাদক ও এশিয়ান টিভি ভালুকা প্রতিনিধি”মো:কামরুল ইসলাম “পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা Logo “প্রেসক্লাব ভালুকা “সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম”পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা Logo “দৈনিক বর্তমান সংবাদের সহ সম্পাদক “সেরাজুর ইসলাম সিরাজ “পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা Logo দৈনিক বর্তমান সংবাদের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক “সুমন মিয়া “পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা Logo “দৈনিক বর্তমান সংবাদের প্রকাশক ও সম্পাদক”মামুন হাসান বিএ”পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা Logo ঈদ আগাম বুকিং কম চায়ের রাজ্য শ্রীমঙ্গলে

বিরামপুরে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক অনুপস্থিত, জাতীয় পতাকা উত্তোলন না করে পাঠদান

ইব্রাহীম মিঞা, বিরামপুরন দিনাজপুর
  • আপডেট সময় : ০৭:৪০:৩০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ১৫৭ বার পড়া হয়েছে

মোঃ ইব্রাহিম মিয়া, বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ
দিনাজপুর জেলার বিরামপুর উপজেলার বিনাইল ইউনিয়নের গঙ্গাদাসপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষকের অনুপস্থিত থাকার ঘটনা ঘটেছে।

বৃহস্পতিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) বিদ্যালয় চলাকালীন সময়ে বিরামপুর উপজেলার বিনাইল ইউনিয়নের গঙ্গাদাসপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সরজমিনে গিয়ে দেখা যায় উক্ত বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও দুইজন সহকারী শিক্ষক অনুপস্থিত। এ বিষয়ে মুঠোফোনে প্রধান শিক্ষকের সাথে কথা বললে তিনি জানান, আমি পাশের বাজারে আছি তার সাথে দেখা করতে চাইলে তিনি বলেন আমি বাসায় চলে এসেছি। উক্ত বিদ্যালয়ের সহকারী দুইজন শিক্ষক না থাকার বিষয় জানতে চাইলে তিনি বলেন আজকে তারা ছুটিতে আছে। হাজিরা খাতা দেখলে জানা যায় যে তারা মঙ্গলবার,বুধবারসহ আজ বৃহস্পতিবার স্কুলে আসেনি। পরবর্তীতে আবার প্রধান শিক্ষকের সাথে মুঠোফোনে এ বিষয়ে কথা বললে তিনি বলেন মনে হয় তিন দিনের ছুটিতে আছেন।প্রধান শিক্ষক হয়ে আপনি মনে হয় কথা বলতেছেন কেন আপনি কি বিদ্যালয়ে ঐদিনগুলোয় উপস্থিত ছিলেন না জিজ্ঞাসা করলে তিনি কথাটি এড়িয়ে যান।
অপরদিকে গত বৃহস্পতিবার (১ ফেব্রুয়ারি) কুন্দনহাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয় পতাকা উত্তোলন না করেই শ্রেণী পাঠদানের ঘটনা ঘটেছে। এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষিকার কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান,পতাকা উত্তোলনের দড়ি ছিঁড়ে যাওয়ায় দুই দিন পতাকা উত্তোলন করা হয়নি। এবং আজ বৃহস্পতিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) বাঁশের সাথে ফিক্সড করে বেঁধে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করে পাঠদান করান। উক্ত সময় বিদ্যালয়ে শুধু তিনি উপস্থিত ছিলেন, অন্যান্য সহকারী শিক্ষকগণ উপস্থিত না থাকার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি জানান একজন ট্রেনিংয়ে আছেন,একজন অসুস্থ আর একজনের বাবা অসুস্থ হয়ায় অর্ধদিবসের মৌখিক ছুটি নিয়েছেন।
বিরামপুর উপজেলার প্রাথমিক সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা নাজিম উদ্দিনের সাথে মুঠো ফোনে কথা বলে জানা যায়,গঙ্গাদাসপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কোন শিক্ষক ছুটিতে নেই। বিরামপুর উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মিনারা বেগমের সাথে মুঠোফোনে কথা বললে তিনি জানান যে বিদ্যালয়গুলোতে এমন ঘটনা ঘটেছে সে সমস্ত বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের শোকজ করা হবে।

ট্যাগস :
Translate »

বিরামপুরে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক অনুপস্থিত, জাতীয় পতাকা উত্তোলন না করে পাঠদান

আপডেট সময় : ০৭:৪০:৩০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

মোঃ ইব্রাহিম মিয়া, বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ
দিনাজপুর জেলার বিরামপুর উপজেলার বিনাইল ইউনিয়নের গঙ্গাদাসপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষকের অনুপস্থিত থাকার ঘটনা ঘটেছে।

বৃহস্পতিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) বিদ্যালয় চলাকালীন সময়ে বিরামপুর উপজেলার বিনাইল ইউনিয়নের গঙ্গাদাসপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সরজমিনে গিয়ে দেখা যায় উক্ত বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও দুইজন সহকারী শিক্ষক অনুপস্থিত। এ বিষয়ে মুঠোফোনে প্রধান শিক্ষকের সাথে কথা বললে তিনি জানান, আমি পাশের বাজারে আছি তার সাথে দেখা করতে চাইলে তিনি বলেন আমি বাসায় চলে এসেছি। উক্ত বিদ্যালয়ের সহকারী দুইজন শিক্ষক না থাকার বিষয় জানতে চাইলে তিনি বলেন আজকে তারা ছুটিতে আছে। হাজিরা খাতা দেখলে জানা যায় যে তারা মঙ্গলবার,বুধবারসহ আজ বৃহস্পতিবার স্কুলে আসেনি। পরবর্তীতে আবার প্রধান শিক্ষকের সাথে মুঠোফোনে এ বিষয়ে কথা বললে তিনি বলেন মনে হয় তিন দিনের ছুটিতে আছেন।প্রধান শিক্ষক হয়ে আপনি মনে হয় কথা বলতেছেন কেন আপনি কি বিদ্যালয়ে ঐদিনগুলোয় উপস্থিত ছিলেন না জিজ্ঞাসা করলে তিনি কথাটি এড়িয়ে যান।
অপরদিকে গত বৃহস্পতিবার (১ ফেব্রুয়ারি) কুন্দনহাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয় পতাকা উত্তোলন না করেই শ্রেণী পাঠদানের ঘটনা ঘটেছে। এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষিকার কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান,পতাকা উত্তোলনের দড়ি ছিঁড়ে যাওয়ায় দুই দিন পতাকা উত্তোলন করা হয়নি। এবং আজ বৃহস্পতিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) বাঁশের সাথে ফিক্সড করে বেঁধে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করে পাঠদান করান। উক্ত সময় বিদ্যালয়ে শুধু তিনি উপস্থিত ছিলেন, অন্যান্য সহকারী শিক্ষকগণ উপস্থিত না থাকার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি জানান একজন ট্রেনিংয়ে আছেন,একজন অসুস্থ আর একজনের বাবা অসুস্থ হয়ায় অর্ধদিবসের মৌখিক ছুটি নিয়েছেন।
বিরামপুর উপজেলার প্রাথমিক সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা নাজিম উদ্দিনের সাথে মুঠো ফোনে কথা বলে জানা যায়,গঙ্গাদাসপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কোন শিক্ষক ছুটিতে নেই। বিরামপুর উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মিনারা বেগমের সাথে মুঠোফোনে কথা বললে তিনি জানান যে বিদ্যালয়গুলোতে এমন ঘটনা ঘটেছে সে সমস্ত বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের শোকজ করা হবে।