ঢাকা ০৭:৩১ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ৩ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
Logo বিরামপুরে সৌদির সাথে মিল রেখে ১৫টি গ্রামের পরিবারে ঈদুল আজহা উদযাপন Logo শেরপুরে পবিত্র ঈদুল আযহার উপলক্ষে শুভেচ্ছা ও আর্থিক সহায়তা দিলেন ছানুয়ার হোসেন ছানু এমপি Logo “দৈনিক বর্তমান সংবাদের নির্বাহী সম্পাদক ও এশিয়ান টিভি ভালুকা প্রতিনিধি”মো:কামরুল ইসলাম “পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা Logo “প্রেসক্লাব ভালুকা “সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম”পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা Logo “দৈনিক বর্তমান সংবাদের সহ সম্পাদক “সেরাজুর ইসলাম সিরাজ “পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা Logo দৈনিক বর্তমান সংবাদের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক “সুমন মিয়া “পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা Logo “দৈনিক বর্তমান সংবাদের প্রকাশক ও সম্পাদক”মামুন হাসান বিএ”পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা Logo ঈদ আগাম বুকিং কম চায়ের রাজ্য শ্রীমঙ্গলে Logo বিরামপুরে সৌদির সাথে মিল রেখে ১৫টি গ্রামের পরিবারে ঈদুল আজহা উদযাপন Logo শাহজাদপুর উপজেলা কৃষকলীগ সাধারণ সম্পাদকের পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা।

ভোলার লালমোহন হাসপাতালে এমপি শাওনের উদ্যোগে চালু  হলো বিনামূল্যে চক্ষু চিকিৎসা 

নুরুল আমিন, ভোলা জেলা প্রতিনিধি:
  • আপডেট সময় : ০৮:২৫:৫৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ১২ জুলাই ২০২৩ ২০৬ বার পড়া হয়েছে
নুরুল আমিন, ভোলা জেলা প্রতিনিধি
ভোলা-৩ আসনের এমপি আলহাজ নুরুন্নবী চৌধুরী শাওনের একান্ত চেষ্টা ও উদ্যোগে লালমোহন হাসপাতালে চালু হলো ফ্রি চক্ষু চিকিৎসা। এলাকার জনগণের কথা চিন্তা করে বিশেষ করে যারা বয়স্ক তাদের প্রতি শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা থেকে দীর্ঘ সময় ধরে তদবির করে লালমোহন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বিনামূল্যে আধুনিক চক্ষু চিকিৎসা সেবা চালু করার জন্য এমপি শাওনকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান চিকিৎসা নিতে আসা লোকজন।
গত প্রায় এক বছর ধরে এ সেবা চলে আসছে। বর্তমানে সেবার মান বৃদ্ধি পেয়েছে। সামনের দিকে আরো উন্নত সেবা দানের আশা প্রকাশ করেন সংশ্লিষ্টরা। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের বহির্বিভাগে একটি কমিউনিটি ভিশন সেন্টার রয়েছে। এখানে সেবা নিতে আসা রোগীদের চক্ষু পরীক্ষা, চিকিৎসা, ওষুধ ও প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম বিনামূল্যে প্রদান করা হয়। প্রতি সপ্তাহের শনিবার থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত সকাল ৯টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত সেবা প্রদান করা হয়।  চক্ষু চিকিৎসা সেবা কেন্দ্রের দায়িত্বে রয়েছেন চক্ষু চিকিৎসা বিষয়ে বিশেষ প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত সিনিয়র স্টাফ নার্স পারভীন।
এখানে চোখের দৃষ্টি কমে যাওয়া, ঘোল বা ঝাপসা দেখা, ছানি পড়া, লেন্স সংযোজন, গ্লুকোমা, কার্ণিয়ার রোগ, আঘাত জনিত সমস্যা, রেটিনা, নেত্রনালীসহ চোখের যাবতীয় রোগের পরীক্ষা, চিকিৎসা, ওষুধ, চশমা প্রদানসহ প্রয়োজনীয় সব ধরনের সহযোগিতা করা হয়।
লালমোহন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কমিউনিটি ভিশন সেন্টারের দায়িত্বে থাকা সিনিয়র স্টাফ নার্স মোসা. পারভীন বেগম বলেন, প্রতিদিন গড়ে ১০-১২ জন রোগী হয়। রোগীরা তাদের চোখের সমস্যা নিয়ে এখানে আসেন। এরপর তাদের সঙ্গে কথা বলে মূল সমস্যা নির্ণয় করি। পরে সেসব সমস্যাগুলো অনলাইনের মাধ্যমে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজের বিশেষজ্ঞ চক্ষু চিকিৎসকদের কাছে পাঠাই। এরপর তারা প্রয়োজনীয় ওষুধসহ প্রেসক্রিপশন লিখে দেন। তখন ওই প্রেসক্রিপশন অনুযায়ী রোগীদের বিনামূল্যে ওষুধসহ প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম প্রদান করা হয়। এছাড়া কারও জটিল সমস্যা হলে বরিশালে রেফার্ড করা হয়। তখন কেবল যাতায়াত ভাড়া দিয়ে সেখানে গিয়ে রোগীরা বিনামূল্যে প্রয়োজনীয় উন্নত চিকিৎসা নিতে পারেন।
স্টাফ নার্স পারভীন বেগম আরো বলেন, এখানে কেবল আমি একা দায়িত্ব পালন করছি। এতে করে আমার ওপর অনেক চাপ পড়ে। যার জন্য আমার বিশেষ প্রয়োজনেও ছুটি নিতে পারছি না। তাই আরো একজন অভিজ্ঞ লোক থাকলে কাজ করতে অনেক সুবিধা হতো। এই কমিউনিটি ভিশন সেন্টারে আরো একজন অভিজ্ঞ লোক পদায়ন জরুরি।
এ ব্যাপারে লালমোহন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা (ইউএইচএফপিও) ডা. মো. তৈয়বুর রহমান জানান, এক সময় উপজেলা পর্যায়ের হসপিটালগুলোতে চোখের বিশেষ কোনো চিকিৎসার ব্যবস্থা ছিল না। তবে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্যোগে সারাদেশের বেশ কিছু উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে উন্নত চক্ষু চিকিৎসার জন্য কমিউনিটি ভিশন সেন্টার চালু করা হয়েছে। এতে করে গ্রাম-গঞ্জের সাধারণ হতদরিদ্র রোগীরাও বিনামূল্যে চিকিৎসাসহ ওষুধ ও প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম পাচ্ছেন। এটি সত্যিই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একটি অনন্য উদ্যোগ। লালমোহনে চক্ষু চিকিৎসা সেবা চালু করার জন্য স্থানীয় এমপি আলহাজ নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন মহোদয়ের আন্তরিক চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।
এই স্বাস্থ্য কর্মকর্তা আরো জানান, লালমোহন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কমিউনিটি ভিশন সেন্টারে দায়িত্ব পালনের জন্য বর্তমানে একজন ঢাকায় প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন। তিনি প্রশিক্ষণ শেষে এখানে যোগদান করলে আর লোকবলের সমস্যা থাকবে না।
ট্যাগস :
Translate »

ভোলার লালমোহন হাসপাতালে এমপি শাওনের উদ্যোগে চালু  হলো বিনামূল্যে চক্ষু চিকিৎসা 

আপডেট সময় : ০৮:২৫:৫৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ১২ জুলাই ২০২৩
নুরুল আমিন, ভোলা জেলা প্রতিনিধি
ভোলা-৩ আসনের এমপি আলহাজ নুরুন্নবী চৌধুরী শাওনের একান্ত চেষ্টা ও উদ্যোগে লালমোহন হাসপাতালে চালু হলো ফ্রি চক্ষু চিকিৎসা। এলাকার জনগণের কথা চিন্তা করে বিশেষ করে যারা বয়স্ক তাদের প্রতি শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা থেকে দীর্ঘ সময় ধরে তদবির করে লালমোহন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বিনামূল্যে আধুনিক চক্ষু চিকিৎসা সেবা চালু করার জন্য এমপি শাওনকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান চিকিৎসা নিতে আসা লোকজন।
গত প্রায় এক বছর ধরে এ সেবা চলে আসছে। বর্তমানে সেবার মান বৃদ্ধি পেয়েছে। সামনের দিকে আরো উন্নত সেবা দানের আশা প্রকাশ করেন সংশ্লিষ্টরা। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের বহির্বিভাগে একটি কমিউনিটি ভিশন সেন্টার রয়েছে। এখানে সেবা নিতে আসা রোগীদের চক্ষু পরীক্ষা, চিকিৎসা, ওষুধ ও প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম বিনামূল্যে প্রদান করা হয়। প্রতি সপ্তাহের শনিবার থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত সকাল ৯টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত সেবা প্রদান করা হয়।  চক্ষু চিকিৎসা সেবা কেন্দ্রের দায়িত্বে রয়েছেন চক্ষু চিকিৎসা বিষয়ে বিশেষ প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত সিনিয়র স্টাফ নার্স পারভীন।
এখানে চোখের দৃষ্টি কমে যাওয়া, ঘোল বা ঝাপসা দেখা, ছানি পড়া, লেন্স সংযোজন, গ্লুকোমা, কার্ণিয়ার রোগ, আঘাত জনিত সমস্যা, রেটিনা, নেত্রনালীসহ চোখের যাবতীয় রোগের পরীক্ষা, চিকিৎসা, ওষুধ, চশমা প্রদানসহ প্রয়োজনীয় সব ধরনের সহযোগিতা করা হয়।
লালমোহন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কমিউনিটি ভিশন সেন্টারের দায়িত্বে থাকা সিনিয়র স্টাফ নার্স মোসা. পারভীন বেগম বলেন, প্রতিদিন গড়ে ১০-১২ জন রোগী হয়। রোগীরা তাদের চোখের সমস্যা নিয়ে এখানে আসেন। এরপর তাদের সঙ্গে কথা বলে মূল সমস্যা নির্ণয় করি। পরে সেসব সমস্যাগুলো অনলাইনের মাধ্যমে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজের বিশেষজ্ঞ চক্ষু চিকিৎসকদের কাছে পাঠাই। এরপর তারা প্রয়োজনীয় ওষুধসহ প্রেসক্রিপশন লিখে দেন। তখন ওই প্রেসক্রিপশন অনুযায়ী রোগীদের বিনামূল্যে ওষুধসহ প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম প্রদান করা হয়। এছাড়া কারও জটিল সমস্যা হলে বরিশালে রেফার্ড করা হয়। তখন কেবল যাতায়াত ভাড়া দিয়ে সেখানে গিয়ে রোগীরা বিনামূল্যে প্রয়োজনীয় উন্নত চিকিৎসা নিতে পারেন।
স্টাফ নার্স পারভীন বেগম আরো বলেন, এখানে কেবল আমি একা দায়িত্ব পালন করছি। এতে করে আমার ওপর অনেক চাপ পড়ে। যার জন্য আমার বিশেষ প্রয়োজনেও ছুটি নিতে পারছি না। তাই আরো একজন অভিজ্ঞ লোক থাকলে কাজ করতে অনেক সুবিধা হতো। এই কমিউনিটি ভিশন সেন্টারে আরো একজন অভিজ্ঞ লোক পদায়ন জরুরি।
এ ব্যাপারে লালমোহন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা (ইউএইচএফপিও) ডা. মো. তৈয়বুর রহমান জানান, এক সময় উপজেলা পর্যায়ের হসপিটালগুলোতে চোখের বিশেষ কোনো চিকিৎসার ব্যবস্থা ছিল না। তবে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্যোগে সারাদেশের বেশ কিছু উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে উন্নত চক্ষু চিকিৎসার জন্য কমিউনিটি ভিশন সেন্টার চালু করা হয়েছে। এতে করে গ্রাম-গঞ্জের সাধারণ হতদরিদ্র রোগীরাও বিনামূল্যে চিকিৎসাসহ ওষুধ ও প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম পাচ্ছেন। এটি সত্যিই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একটি অনন্য উদ্যোগ। লালমোহনে চক্ষু চিকিৎসা সেবা চালু করার জন্য স্থানীয় এমপি আলহাজ নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন মহোদয়ের আন্তরিক চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।
এই স্বাস্থ্য কর্মকর্তা আরো জানান, লালমোহন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কমিউনিটি ভিশন সেন্টারে দায়িত্ব পালনের জন্য বর্তমানে একজন ঢাকায় প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন। তিনি প্রশিক্ষণ শেষে এখানে যোগদান করলে আর লোকবলের সমস্যা থাকবে না।