ঢাকা ০৯:২৩ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
Logo ঈদের আনন্দে প্রবাসীরা কতটুকু হাসি খুশি থাকে Logo ঈদুল আযাহার নামাজ আদায় চকশৈল্যা বাজার ঈদগাহ মাঠে। Logo বিরামপুরে সৌদির সাথে মিল রেখে ১৫টি গ্রামের পরিবারে ঈদুল আজহা উদযাপন Logo শেরপুরে পবিত্র ঈদুল আযহার উপলক্ষে শুভেচ্ছা ও আর্থিক সহায়তা দিলেন ছানুয়ার হোসেন ছানু এমপি Logo “দৈনিক বর্তমান সংবাদের নির্বাহী সম্পাদক ও এশিয়ান টিভি ভালুকা প্রতিনিধি”মো:কামরুল ইসলাম “পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা Logo “প্রেসক্লাব ভালুকা “সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম”পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা Logo “দৈনিক বর্তমান সংবাদের সহ সম্পাদক “সেরাজুর ইসলাম সিরাজ “পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা Logo দৈনিক বর্তমান সংবাদের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক “সুমন মিয়া “পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা Logo “দৈনিক বর্তমান সংবাদের প্রকাশক ও সম্পাদক”মামুন হাসান বিএ”পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা Logo ঈদ আগাম বুকিং কম চায়ের রাজ্য শ্রীমঙ্গলে

মদনে তিন দিনের অনশনে প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকা

নিজস্ব প্রতিবেদন
  • আপডেট সময় : ০৫:১২:৩৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুলাই ২০২৩ ১৫৯ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদন:-

স্ত্রীর স্বীকৃতির দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে ৩দিন ধরে অনশন পালন করছেন প্রেমিকা(১৯)। ঘটনাটি ঘটেছে নেত্রকোনার মদন উপজেলার নায়েকপুর ইউনিয়নের বাঁশরী মাইজপাড়া গ্রাম।জানা যায়, বাঁশরী মাঝপাড়া গ্রামেরইঞ্জিল মিয়ার ছেলে আশিকুজ্জামান (২৫) এর সঙ্গে একই গ্রামের আব্দুর রশিদের মেয়ে তামান্না আক্তার (১৯) এর সাথে দীর্ঘদিন ধরে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে দুজনের। বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর দুই পরিবারের অভিভাবক মিলে বিবাহের কথা বার্তা ধার্য করে রাখেন তাদের।(১৫ জুলাই) রোজ শনিবার সারা জমিনে গেলে অনশনে থাকা ওই যুবতী নারী জানায়, তিন বছরে ধরে আমাদের দুজনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক চলে।দুজনের প্রেমের সম্পর্কের বিষয়টি দুই পরিবারের লোকজন জানাজানি হওয়ার পর।

দুই পরিবার মিলে বিবাহের কথা বার্তা ধার্য করে রাখেন। বিবাহ ঠিক হওয়ার পর থেকেই আশিকুজ্জামান আমাকে বিভিন্ন জায়গায় নিয়ে একাধিকবার জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।এখন আশিকুজ্জামান পরিবার অন্য জায়গায় বিবাহর কথা বার্তা ঠিক করেছে শুনে আমি তাদের বাড়িতে এসে উঠেছি।আশিকুজ্জামান আমাকে বাড়িতে দেখে পালিয়ে যায়, এবং তার মা আমাকে ঘর থেকে জোরপূর্বক বের করে দিয়ে দরজার তালা ঝুলিয়ে দিয়ে চলে গেছে। আশিকুজ্জামান আমার মান ইজ্জত ধ্বংস করছে, এখন যদি সে আমাকে স্ত্রীর স্বীকৃতি না দেয় তবে আমার বেচে থেকে লাভ নাই। আমি যে কোন সময় আত্মহত্যা করব আশিকুউজ্জামান এর জন্য।

এ বিষয়ে মোবাইল ফোনে আশিকুজ্জামানের সাথে কথা হলে সে এ প্রতিনিধিকে জানায়, পারিবারিক ভাবে গত দুই বছর পূর্বে বিবাহের কথা বার্তা হয়েছিল,এখন আমার পরিবারের পছন্দ হয় না।জোরপূর্বক বিভিন্ন জায়গা নিয়ে একাধিকবার ধর্ষণের বিষয়ে জানতে চাইলে, আশিকুজ্জামান বলেন সে আমার সম্পর্কে খালাতো বোন হয়, তাই বিভিন্ন জায়গায় নিয়ে গিয়ে এক সাথে ছবি উঠিয়েছি, কিন্তু জোরপূর্বক তাকে ধর্ষণ করিনি।

এ বিষয়ে মদন থানা অফিসার ইনচার্জ ওসি মোহাম্মদ তাওহীদুর রহমান তিনি এ প্রতিনিধিকে বলেন, বিষয়টি অবগত হয়েছি। কিন্তু ভুক্তভোগী পরিবারের পক্ষ থেকে এখনও কোনো লিখিত অভিযোগ পাইনি। লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ট্যাগস :
Translate »

মদনে তিন দিনের অনশনে প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকা

আপডেট সময় : ০৫:১২:৩৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুলাই ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদন:-

স্ত্রীর স্বীকৃতির দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে ৩দিন ধরে অনশন পালন করছেন প্রেমিকা(১৯)। ঘটনাটি ঘটেছে নেত্রকোনার মদন উপজেলার নায়েকপুর ইউনিয়নের বাঁশরী মাইজপাড়া গ্রাম।জানা যায়, বাঁশরী মাঝপাড়া গ্রামেরইঞ্জিল মিয়ার ছেলে আশিকুজ্জামান (২৫) এর সঙ্গে একই গ্রামের আব্দুর রশিদের মেয়ে তামান্না আক্তার (১৯) এর সাথে দীর্ঘদিন ধরে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে দুজনের। বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর দুই পরিবারের অভিভাবক মিলে বিবাহের কথা বার্তা ধার্য করে রাখেন তাদের।(১৫ জুলাই) রোজ শনিবার সারা জমিনে গেলে অনশনে থাকা ওই যুবতী নারী জানায়, তিন বছরে ধরে আমাদের দুজনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক চলে।দুজনের প্রেমের সম্পর্কের বিষয়টি দুই পরিবারের লোকজন জানাজানি হওয়ার পর।

দুই পরিবার মিলে বিবাহের কথা বার্তা ধার্য করে রাখেন। বিবাহ ঠিক হওয়ার পর থেকেই আশিকুজ্জামান আমাকে বিভিন্ন জায়গায় নিয়ে একাধিকবার জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।এখন আশিকুজ্জামান পরিবার অন্য জায়গায় বিবাহর কথা বার্তা ঠিক করেছে শুনে আমি তাদের বাড়িতে এসে উঠেছি।আশিকুজ্জামান আমাকে বাড়িতে দেখে পালিয়ে যায়, এবং তার মা আমাকে ঘর থেকে জোরপূর্বক বের করে দিয়ে দরজার তালা ঝুলিয়ে দিয়ে চলে গেছে। আশিকুজ্জামান আমার মান ইজ্জত ধ্বংস করছে, এখন যদি সে আমাকে স্ত্রীর স্বীকৃতি না দেয় তবে আমার বেচে থেকে লাভ নাই। আমি যে কোন সময় আত্মহত্যা করব আশিকুউজ্জামান এর জন্য।

এ বিষয়ে মোবাইল ফোনে আশিকুজ্জামানের সাথে কথা হলে সে এ প্রতিনিধিকে জানায়, পারিবারিক ভাবে গত দুই বছর পূর্বে বিবাহের কথা বার্তা হয়েছিল,এখন আমার পরিবারের পছন্দ হয় না।জোরপূর্বক বিভিন্ন জায়গা নিয়ে একাধিকবার ধর্ষণের বিষয়ে জানতে চাইলে, আশিকুজ্জামান বলেন সে আমার সম্পর্কে খালাতো বোন হয়, তাই বিভিন্ন জায়গায় নিয়ে গিয়ে এক সাথে ছবি উঠিয়েছি, কিন্তু জোরপূর্বক তাকে ধর্ষণ করিনি।

এ বিষয়ে মদন থানা অফিসার ইনচার্জ ওসি মোহাম্মদ তাওহীদুর রহমান তিনি এ প্রতিনিধিকে বলেন, বিষয়টি অবগত হয়েছি। কিন্তু ভুক্তভোগী পরিবারের পক্ষ থেকে এখনও কোনো লিখিত অভিযোগ পাইনি। লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।